নোটিশ
সংবাদকর্মী আবশ্যক: সকল বিভাগের জেলা, উপজেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে কিছু সংখ্যক সংবাদকর্মী ও বিজ্ঞাপন প্রতিনিধি জরুরী ভিত্তিতে নেওয়া হবে। আগ্রহীরা  যোগাযোগ: ০১৭২৯২৫৮৬৮০ । অভজ্ঞি সম্পন্ন এবং কাজরে প্রতি দায়িত্বশীল প্রার্থীদের অগ্রাধীকার দেওয়া হবে।
বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৮:৪৫ অপরাহ্ন

বিজ্ঞাপন ১৯

চেয়ারম্যান ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় রাস্তা সংস্কার

মোঃ নজরুল ইসলাম, বামনা থেকেঃ / ২৬৪ বার
সময়: শুক্রবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২০

বিজ্ঞাপন ২০

বরগুনার বামনা উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত বামনা সদর রোড থেকে লঞ্চ ঘাট পর্যন্ত যাতায়াতের জন্য একমাত্র রাস্তাটি যানবাহন চলাচলের অনুপোযোগী হয়ে পরেছিল।

করোনার এ ক্লান্তিলগ্নে জরুরী স্বাস্থ্যসেবা গ্রহণ,কোমলতি শিক্ষার্থীদের স্কুল কলেজে যাতায়াত তথা শিক্ষা লাভের জন্য চলাচলের পথ এবং হাট বাজারের অর্থনৈতিক লেনদেন কার্যক্রম পরিচালনা ও ব্যাংকিং সেবা গ্রহন এবং মৌলিক প্রয়োজনগুলো মেটাতে এই রাস্তাটিই চলাচলের একমাত্র মাধ্যম হিসেবে ব্যাবহৃত হয়।

অপরদিকে দক্ষিণ জনপদের যেমন বামনা,সোনাখালী, খোলপটুয়াবাজার, বুকাবুনিয়ার বাজারের প্রয়োজনীয় পন্য সহ বরিশাল,চাঁদপুর, ঢাকাগামী যাত্রীরা এ রাস্তাটিকে ব্যবহার করে, ঢাকা থেকে যত মালামাল আসে সেখানেও এই রাস্তাটির গুরুত্ব অপরিসীম বলে দেখা যায়। মানুষের নৌ পরিবহন সুবিধা গ্রহণের জন্য লঞ্চঘাটে যেতে হয় এই রাস্তাটি দিয়েই ।

এ ছাড়াও রয়েছ একটি বামনা বদনীখালি খেয়া, যে খেয়ার মাধ্যমে দৈনিক হাজারো মানুষ মটরবাইক সহ পারাপার হয়ে থাকে। বামনা সদর রোড থেকে লঞ্চ ঘাট পর্যন্ত এ রাস্তার আশে পাশে রয়েছে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা। উপজেলার স্বনামধন্য শিক্ষাঙ্গন বেগম ফায়জুন্নেসা মহিলা ডিগ্রী কলেজ,১২ নং বামনা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, খাদ্য গুদাম, ইউনিয়ন পরিষদ, বামনা সদর আর রশীদ ফাজিল মাদ্রাসা সহ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা নির্মিত আছে এ রাস্তাটির পার্শ্ববর্তী স্থানে। অথচ এই রাস্তাটি বহুদিন যাবত ভারী বষর্নের কারনে চলাচলে অনুপোযগী হয়ে পরেছিল।

এই রাস্তাটি দিয়ে কোন গাড়ি চলাচল করা সম্ভব ছিল না। এ কারনে বিভিন্ন পত্রিকায় লেখা লেখিও করা হয়। জনগনের এই দূর্ভোগ লাগবের জন্য বামনা সদর ইউপি চেয়ারম্যান স্বনামধন্য এ্যাডভোকেট চৌধুরী কামরুজ্জামান ছগীর নিজ উদ্যোগে রাস্তাটি সংস্কারের ব্যবস্থা করেন। তার সাথে আরও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় বরগুনা জেলা পরিষদের সদস্য এ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন মোল্লা তাদের এ মহতী কাজে বিভিন্ন ইট ভাটার মালিকগণ এগিয়ে আসেন।

সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডভোকেট চৌধুরী কামরুজ্জামান ছগীর নিজ উদ্যোগে এলাকার অনেক ভাঙ্গা রাস্তা সংস্কার করেছেন বলে জানা যায়। তার এই উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ডে এলাকাবাসী তার উপর সন্তুষ্ট।

বিজ্ঞাপন ২০


এই বিভাগের আরও খবর

বিজ্ঞাপন ২১

পুরাতন সংবাদ

বিজ্ঞাপন ২২

প্রযুক্তি সহায়তায় আল-ফাহাদ কম্পিউটার